দিনাজপুর দুদকের একটি টিম বৃহস্পতিবার সন্ধা ৬টায় পার্বতীপুর উপজেলা ত্রাণ কর্মকর্তা মো: তাজুল ইসলামের সরকারী বাসভবনে হানা দিয়ে ১ কোটি ৮৫ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা উদ্ধারসহ তাকে আটক করে।

দিনাজপুর দুদকের উপপরিচালক আবুহেনা আশিকুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযানটি পরিচালিত হয়। ১ঘন্টা ধরে পরিচালিত ঐ অভিযানে টেবিলের ড্রয়ার, একটি কার্টুন এবং বিছানার নীচ থেকে টাকাগুলো উদ্ধার করে। এ টাকাগুলো গণনার জন্য অগ্রণী ব্যাংক থেকে মেশিন আনা হয়।

দুদক সুত্র জানা যায়, ১০৬ নাম্বারে গোপন সংবাদ পেয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দবির উদ্দিন ও পার্বতীপুর মডেল থানার পুলিশ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহনাজ মিথুন মুন্নি, উপজেলা ভুমি কর্মকর্তা আবু তাহেরের উপস্থিতে টাকা উদ্ধার কাজ চলে। জানানো হয়েছে উদ্ধার করা টাকাগুলো গৃহিত নানা প্রকল্পের আতœসাতকৃত। তাজুল ইসলাম কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট থানার আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে। তিনি ৭ জানুয়ারী ২০১৬ সাল থেকে পার্বতীপুরে ত্রাণ কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

উদ্ধার শেষে নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে ব্যাংকিং পদ্ধতিতে টাকাগুলো নাম্বারিং করারপর তাকে হাত কড়া পড়িয়ে দিনাজপুরে উদ্যেশে নিয়ে যায় দুদক। নিমেষেই ঘটনাটি টপঅবদি টাউনে পরিণত হয়ে পড়ে। অভিযানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক জিন্নাতুল ইসলাম, সহকারী পরিদর্শক ওবায়দুর রহমান, সহকারী পরিদর্শক আব্দুল আজিজ, এএসআই সামসুলহক সরকারসহ আরো অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*