পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:
পার্বতীপুরের বিশিষ্ট রাজনীতিক একুশে চেতনা পরিষদের প্রতিষ্টাতা সভাপতি সদ্য প্রয়াত কমরেড মোজাম্মেল হোসেন শ্বরনে শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (১৯ অক্টোবর) বিকেলে একুশে চেতনা পরিষদের উদ্যোগে শহরের কালিবাড়িস্থ সংগঠনের অস্থায়ী কার্যালয়ে এ উপলক্ষে আলোচনা সভা দোয়া ও বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করা হয়।

একুশে চেতনা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. মুসলিমুর রহমানের সভাপতিত্বে শ্বরন সভায় বক্তব্য দেন, সহ-সভাপতি নাসরিন জাহান মৌসুমি, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আল মামুন মিলন, সহ সম্পাদক মুসফিক বরাত, কোষাধক্ষ মো. মমিনুল ইসলাম, জান্নাতুন শিরিন শিউলী প্রভাষক আঃ বারী, কাজী মোজাহেদুল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান ও শামসুজ্জামান প্রমুখ। বক্তারা বলেন, মোজাম্মেল হোসেন আজ আমাদের মাঝে নেই। কিন্তু তার আদর্শ চিন্তা ও দর্শন বহুকাল বেঁচে থাকবে। তার রেখে যাওয়া অসামাপ্ত কাজ শেষ করার দায়িত্ব আমাদেরকেই নিতে হবে।

কমরেড মেজাম্মেল হোসেন ছাত্র ইউনিয়নের (মেনন) মধ্য দিয়ে বামপন্থি রাজনীতিতে আবির্ভুত হন। পরবর্তিতে বাংলাদেশের ওয়ার্কাশ পাটি করার মধ্য দিয়ে কেন্দ্রীয় কমিটির পলিট ব্যুরোর সদস্য পদ লাভ করেন । দীর্ঘ রাজনৈতিক পট পরিক্রমায় ১৪ দলীও জোট গঠন হলে ওয়ার্কার্শ পার্টি বিভক্তির পর মোজাম্মেল হোসেন হায়দার আকবর রনোর সাথে জড়িয়ে যান। পরবর্তীতে বাংলাদেশের কমিউনিষ্ট পাটিতে যোগদেন। দীর্ঘ রাজনৈতিক কর্মজীবনের পাশাপাশি ২০০৬ সালে তিনি একুশে চেতনা পরিষদ নামে একটি অসমপ্রদায়িক সংগঠন গঠন করেন। সংগঠনের মুল এজেন্ডা ছিল মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জাতীকে জাগ্রত করা। এর পাশাপাশি একটি গণকেন্দ্র পাঠাগার গঠনের উদ্দ্যোগ নেন তিনি ।

২০১৭ সালে সড়ক দুর্ঘটনায় তিনি পা ও কোমরে আঘাত প্রাপ্ত হলে কিছুটা ভারাক্রান্ত হয়ে পড়েন। তার পরেও থেমে থাকেনি সাংগঠনিক কর্মকান্ড। এসবের পাশাপাশি বিভিন্ন পত্র পত্রিকা, বই পড়া এবং বিভিন্ন লেখকের বই সংগ্রহ করার নেশা ছিল প্রচন্ড । সামাজিক রাজনৈতিক কিংবা অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপটের উপর লেখা এ সমস্ত প্রবন্ধ, কাব্যগ্রন্থ কিংবা উপন্যাস সংগ্রহ শালাটি ছিল একটি লাইব্রেরির মত। এসবের মধ্যে হুমায়ুন আহম্মেদের নারী, অদিতি ফাল্গুনির কমলাক্ষের অকাল বোধন, মোহাম্মদ শহিদুল্লাহর রুদ্র, আনু মোহাম্মদের বিশ্বয়নের বৈপরীত্ব এম এ কাফি সরকারের মুক্তিযুদ্ধে দিনাজপুর, হায়দার আকবর খান রনোর নির্বাচিত প্রবন্ধ, ফরাসি বিপ্লব থেকে অক্টোবর বিপ্লব, কার্ল মার্কস এর দর্শনের দারিদ্র, আহম্মদ রফিক এর দেশ বিভাগ, এখলাছুর রহমানের মার্কসীয় অর্থনীতি নিত্র তলস্তয়ের ওয়্যার এ্যন্ড নীস (যুদ্ধ ও শান্তি), মার্কস এঙ্গেল স্মৃতি, শামসুর রহমানের কবিতা সহ আসখ্য লেখকের বই মেলে তার এই সংগ্রহ শালায়।

 

চলতি বছরের মাঝামাঝি সময়ে তিনি শাররীক অসুস্থতায় ভেংেগে পড়েন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত (৬অক্টোবর) শহরের নিজ বাড়িতে লিভার সিরাশিস জনিত কারনে ৬২ বছর বয়সে না ফেরার দেশে চলে যান তিনি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*