পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:
পার্বতীপুরে দুই সন্তানের জননী ও তিন সন্তানের জনক পরকীয়ায় লিপ্ত হওয়ায় গ্রামবাসি আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। এ ব্যাপারে দুই সন্তানের জননীর স্বামী শাহ আলম ড্রাইভার বাদী হয়ে পার্বতীপুর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। উভয়কে আজ সোমবার জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। জানা যায়, রোববার (১৩ই অক্টোবর) রাত সাড়ে দশটার সময় মধ্যপাড়া ভাদুড়ি বাজারের ভুট্টা ব্যবসায়ী মাফিজুল হক তার নিজ ব্যবসায়িক গোডাউনে একই এলাকার শাহ আলম ড্রাইভারের স্ত্রী দুই সন্তানের জননী মোছাঃ তহুরা বেগম (৩০) কে নিয়ে পরকীয়ায় লিপ্ত হয়। বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয় লোকজন তাদেরকে আটক করে ১০নং হরিরামপুর ইউনিয়ন কার্যালয়ে তালাবদ্ধ করে রাখে।
সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ মাসুদুর রহমান শাহ মাসুদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন দুই জনেরই স্বামী স্ত্রী থাকায় বিষয় জটিল। তাই আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহনে জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশনা মোতাবেক ব্যবস্থা গৃহিত হবে। শারীরিক মেলামেশার কথা স্বীকার করে তহুরা বেগম জানান, শুধু গতরাতে নয় বিয়ের প্রলোভনে মাফিজুল আমাকে প্রায় দুই বছর হতে নিজের স্ত্রীর মতো মেলামেশা করছে এবং স্বপ্ন পুরি সহ বিভিন্ন স্থানে নিয়ে গিয়ে রাত্রি যাপন করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*