আখাউড়া ( ব্রাক্ষনবাড়িয়া)  প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় ফিরোজ মিয়া (৬০) নামে এক বাক প্রতিবন্ধী ব্যক্তির পুরুষাঙ্গ কেটে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা। পরে স্বজনরা তাকে গুরতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করে। বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের উমেদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত ফিরোজ ওই গ্রামের মৃত সুরুজ মিয়ার ছেলে।

এবিষয়ে ফিরোজ মিয়ার ভাগিনা আবু হানিফ এবং ওই গ্রামের বাসিন্দা সাবেক মেম্বার মো. আনু মিয়াসহ পরিবারের লোকজন জানান, ফিরোজ মিয়া একজন বাক প্রতিবন্ধী ব্যক্তি। তার স্ত্রী কিংবা সন্তানাদি নেই। একটি দু’ চালার টিনের ঘরে এক পাশে একটি গরু আর অন্যপাশে সে বসবাস করে আসছে, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে টিনের ঘরের বেড়ার মধ্যে বিকট শব্দ শুনে বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসলে মুখোশধারী দূর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। এসময় তাকে ঘরের বাইরে গুরতর আহত উলঙ্গ পুরুষাঙ্গ কাটা অবস্থায়  উদ্ধার করা হয়। সে বর্তমানে আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধিন রয়েছে।

কর্তব্যরত চিকিৎসক সানজিদা মাহমুদ জানান, আহত ফিরোজ মিয়ার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার পুরুষাঙ্গে একাধিক সেলাই করা হয়েছে। আখাউড়া থানার ওসি (তদন্ত)  আরিফুল আমিন  বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই।  অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

বাদল আহাম্মদ খান/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*