আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি:

আখাউড়ায় কর্তব্যরত অবস্থায় এক স্কুল শিক্ষকে শারিরিক ভাবে লাঞ্চিত করা হয়েছে।

শনিবার সকালে স্কুল চলাকালীন সময়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার ধরখার ইউনিয়নের চান্দপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ রফিকুল ইসলামকে চান্দপুর গ্রামের মোঃ নবীন মিয়ার ছেলে সাদ্দাম হোসেন (৩০) বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে ঢুকে সাথে থাকা দুই মহিলা সহকারী শিক্ষকের সামনেই রফিকুল ইসলামকে শারিরীক ভাবে লাঞ্চিত করেছে। পরে সাদ্দামের হাতে থাকা একটি প্লাস্টিক পাইপ দিয়ে মারধর করতে গেলে সহকারী শিক্ষক শিউলী আক্তার ও শিল্পী রাণী বর্মণ তাকে বাঁধা দেয়।

এবিষয়ে ভূক্তভোগী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জানায়, আজ থেকে তিন মাস আগে তার বড় ভায়ের সাথে তর্কবিতর্ক হয় এর জের ধরে সে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে ঢুকে বলে রাস্তা ঘাটে কি বলিস তুই একথা বলেই সে আমাকে শারিরীকভাবে লাঞ্চিত করে পরে আমার সহকর্মী দুই শিক্ষক তাকে বাধা দেয়, তিনি আরো বলেন আমি বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি, সে বলে বেড়ায় আমাকে যেখানে পাবে সেখানেই সে কুপিয়ে হত্যা করবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আখাউড়া উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার লুৎফুর রহমান বলেন, ভূক্ত ভোগী শিক্ষক রফিকুল ইসলাম বিষয়টি আমাকে ফোনে জানিয়েছেন, আমরা লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবো।

মোঃ বাদল আহাম্মদ খাঁন/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*