আখাউড়া প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় নিরাপত্তা বাহিনী (আরএনবি) সদস্য  প্রীতম ভট্টাচার্য্যকে আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে ফেলে হত্যাকান্ডের বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তার পরিবার।

শনিবার দুপুরে আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে নিহত প্রীতমের বাবা প্রাণকৃষ্ণ ভট্টাচার্য্য অভিযোগ করে বলেন, ২০১৮ সালের ২৮ আগষ্ট রাতে আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশন থেকে বদলি দায়িত্ব নিয়ে প্রীতম  আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনে ডিউটিতে যায়। আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনে আখাউড়া থেকে চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত তার দায়িত্ব ছিল। পথিমধ্যে সীতাকুণ্ড রেলওয়ে স্টেশনের বারৈয়াঢালা ৪৪/০২/০৩ রেলওয়ে কিলোমিটার সিগন্যাল এলাকায় চলন্ত ট্রেন থেকে প্রীতমকে ফেলে দেয়া হয়।

পরে আইসিউতে লাইফ সার্পোট থাকাবস্থায় ৮ দিন পর তার মৃত্যু হয়। প্রাণকৃষ্ণ ভট্টাচার্য্য বলেন, প্রীতমের চিকিৎসা চালাতে গিয়ে ৩৮ লাখ টাকা খরচ করেও আমার ছেলেকে বাচাতে পারিনি। আমি এখন সর্বশান্ত। আমার ছেলের হত্যাকান্ডের বিচার চাওয়ায় ছোট ছেলে নিরাপত্তা সদস্য রানা ভট্টাচার্য্যকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে ছেলে প্রীতম হত্যার দ্রুত বিচার ও ছেলের চাকরিতে ফিরিয়ে নেয়াসহ আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হওয়া অর্থ ফেরৎ পাবার দাবি জানান ভুক্তভোগী পরিবার।

বাদল আহাম্মদ খান/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*