বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি:

যশোরের শার্শা লক্ষনপুর গ্রামে পুলিশের এসআই পরিচয় দিয়ে এক গৃহবধুকে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় একজন অজ্ঞাত ব্যাক্তি সহ চারজনকে আসামী করে শার্শা থানায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত তিনজন কে আটক করেছে পুলিশ। অজ্ঞাত ব্যাক্তিকে সনাক্ত করনের জন্য তদন্ত করা হচ্ছে।

আটককৃতরা হলো শার্শা থানার লক্ষনপুর গ্রামের আঃ মজিদের ছেলে আঃ কাদের, একই গ্রামের আঃ মাজেদের ছেলে আঃ লতিফ ও চটকা পোতা গ্রামের হানিজ উদ্দিনের ছেলে কামরুজ্জামান। ধর্ষিত গৃহবধু পরের দিন যশোর সদর হাসপাতালে সাংবাদিকদের কাছে এ কথা জানান।

ধর্ষিত গৃহবধু লিখিত অভিযোগে বলেন, মঙ্গলবার গভীর রাতে গোড়পাড়া ফাড়ির এসআই খাইরুল পরিচয় দিয়ে আমার বাড়ীতে এসে দরজা খুলতে বলেন। দরজা খুললে ৪ জন ব্যাক্তিকে দেখতে পাই। এসময় ২ জন ব্যাক্তি আমাকে খাটের উপর ফেলে দিয়ে ধর্ষন করে চলে যায়। এবং জানাজানি না করার হুমকি দেয়া হয়। ধর্ষিত গৃহবধুকে যশোর সদর হাসপাতালে থেকে মেডিকেল পরিক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে যশোর শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মশিউর রহমান জানান, এসআই খায়রুলের নাম ব্যবহার করে গৃহবধুকে ধর্ষন করা হয়েছে। এ ঘটনায় একজন অজ্ঞাত ব্যাক্তি সহ চারজনকে আসামী করে শার্শা থানায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত তিনজন কে আটক করেছে পুলিশ। অগ্যাত ব্যাক্তিকে সন্যাক্ত করনের জন্য তদন্ত চলছে।

মোঃ রাসেল ইসলাম/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*