পীরগঞ(রংপুর)প্রতিনিধি:
মধ্যযুগীয় কায়দায় 30-35 বছর ধরে পায়ে লোহার শিকল ও তালা দিয়ে আম গাছের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়েছে গোলাম মাওলাকে ।
দর্শক কথা বলছিলাম রংপুর জেলার পীরগঞ্জ উপজেলায় 2 নং ভেন্ডাবাড়ী ইউনিয়নের 6 নং ওয়ার্ডের শরীফপুর গ্রামের গোলাম মাওলার কথা। যার মানসিক সমস্যার জন্য 30 থেকে 35 বছর ধরে পায়ে লোহার শিকল ও তালা দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে এই আম গাছের সঙ্গে । লোহার শিকল ও তালা তার হয়েছে জীবনের একমাত্র সঙ্গী। নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগের সঙ্গে মোকাবিলা করে তার জীবন চলে কোনরকমে।
কবে সে মুক্তির পথ দেখবে কবে সে আলোর সন্ধানে আলোকিত হয়ে ঘুরে বেড়াবে। তারই নিজ গ্রাম হয়েছে অচেনা এক গ্রাম তার কাছে। কারণ অনেক বছর থেকে তাকে পায়ে লোহার শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে আম গাছের সঙ্গে। আমরা এ নিয়ে কথা বলি তার বড় ভাইয়ের সঙ্গে আসলেই সে কি পাগল না তার কোন সমস্যাই নেই।
এই নিয়ে কথা হয় এলাকার ব্যক্তিবর্গদের সঙ্গে তারা আমাদেরকে বলে গোলাম মাওলা একজন পাগল কিন্তু তাকে যেভাবে বেঁধে রাখা হয়েছে সেটা অমানবিক যদি কোন ব্যক্তি গোলাম মৌলার চিকিৎসার জন্য যদি কোন সুব্যবস্থা করতেন তাহলে গোলাম মাওলা হয়তোবা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারতো।
আমাদের সঙ্গে কথা বলেন ভেন্ডাবাড়ি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম তিনি যেটা বলেন, গোলাম মৌলা একজন পাগল ত পীরগঞ্জের এমপি ডক্টর শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি যদি তার কোন সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতেন তাহলে গোলাম মাওলা পরিবার খুবই উপকৃত হত।
মিনহাজুল ইসলাম মিলন/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*