আখাউড়া প্রধিনধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার চান্দুরা-আখাউড়া সড়কটি দীর্ঘ দিন ধরে সংস্কার না করায় রাস্তার মাঝে সৃষ্টি হয়েছে ছোট-বড় অনেক গর্ত যার ফলে গাড়ি চালক, স্কুল শিক্ষার্থী, রোগী ও জণসাধারণকে পড়তে হচ্ছে নানা রকম বিড়ম্বনায়।

সরেজমিনে গেলে দেখা যায়, বিজয়নগর উপজেলার সিঙ্গারবিল থেকে শুরু করে আটকলা, শ্রীপুর, নোয়াগাও, চম্পকনগর, চান্দুরা পর্যন্ত পুরো রাস্তা জুড়ে খন্দখানায় পরিণত হয়েছে, এতে করে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে এসব এলাকার জণসাধারণ।

এ রাস্তায় চলাচল করতে গিয়ে প্রতিনিয়িত পথচারী ও যাত্রীরা ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন স্থানীয় সিএনজি চালক জমির হোসেন, তিনি বলেন রাস্তাটি সংস্কার না করায় বর্তমানে অবস্থা এতটাই খারাপ যে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে রাস্তাটি, সরেজমিনে গেলে দেখা যায় রাস্তার বিভিন্ন অংশে পানি জমে পুকুরে পরিণত হয়েছে যার কারণে রাস্তায় জমে থাকা পানিতে পুকুর ভেবে ভাসছে হাঁস।

স্থানীয়রা জানায় প্রতিদিন এ রাস্তায় চলাচল করতে হয় তাদের, এই রাস্তা ছাড়া বিপরীত কোন রাস্তাও নেই, মনে হয় যে গাড়ি উল্টে দূর্ঘটনায় পড়ে প্রাণটায় না হারায়।

লক্ষ্য করা যায় ভারী যানবাহন চলাচলের কারণে সড়কের বিভিন্ন স্থানে গর্তের সৃষ্টি হওয়াতে আরো বেশি অকেজো হয়ে পড়েছে বিজয়নগর থেকে আখাউড়া যাবার এই প্রধান সড়কটি, এমনকি সড়কের পিচ, সুরকি, ইট উঠে গিয়ে বড় বড় গর্তও হয়েছে যার ফলে যেকোন মুহুর্তে ঘটতে পারে দূর্ঘটনা। বৃষ্টি হলেই এসব গর্তে পানি আটকে থেকে পরিস্থিতি আরো বেশি খারাপ হযে যায়।

শ্রীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা জানান, দীর্ঘদিন রাস্তাটির সংস্কার না করাতে পুকুরে পরিণত হয়েছে প্রধান এ রাস্তাটি, স্কুলের কচি সোনামনিরা স্কুলে আসতেও ভয় পায়, পানির উপর দিয়ে হেটে আসতে হয় স্কুলে।

এ বিষয়ে মোঠো ফোনে কথা হলে বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মেহের নিগার জানান,  রাস্তার যে অংশগুলো ভেঙে গেছে তা মেনটেনেন্স করার জন্য এলজিডি কে বলা হয়েছে ভাঙ্গা স্থান গুলো দ্রুত সংস্কার করা হবে। এবং মূল সড়কের স্থায়ী কাজ কিছুদিনের মধ্যেই আরম্ভ হবে বলে তিনি আশ্বস্ত করেন। তবে স্থানীয়দের দাবি, দ্রুত আখাউড়া-চান্দুরা সড়কটি সংস্কার করা হোক

বাদল আহাম্মদ খান/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*