সৌদিআরব প্রতিনিধি:

ত্যাগের মহিমা ও পশু কোরবানির মাধ্যমে আল্লাহর নৈকট্য লাভের নিমিত্তে সৌদি আরবে যথাযোগ্য মর্যাদা এবং ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পালিত হচ্ছে মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা।

ফজরের নামাজ আদায়ের পরপরই দল বেঁধে ঈদের জামায়াতে অংশ নিতে পবিত্র মসজিদুল হারাম শরীফ মক্কায় ও মদিনায় এবং বিভিন্ন ঈদগাহ ময়দানের উদ্দেশ্যে রওনা হন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।  বিশ্বের সবচেয়ে পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ অনুষ্ঠিত হয় সৌদিআরবে মসজিদুল হারাম শরীফ মক্কায় স্থানীয় সময়  সকাল ৬: ১৫ মিনিটে  । এতে ইমামতি করেন শেইখ সাউদ সামনি। নামাজ শেষে চিরাচরিত নিয়ম অনুযায়ী একে অপরের সঙ্গে কুলাকুলি করে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এই ঈদ সমগ্র বিশ্বে মুসলমানদের ত্যাগ, আত্মসমর্পণের শিক্ষা দেয়। তাই এ দিনকে কোরবানির ঈদও বলা হয়।

রবিবার মুজদেলিফায় ফজরের নামাজ আদায় করে মিনায় নিজ নিজ তাঁবুতে ফিরছেন হাজীরা। মিনায় শয়তানকে পাথর নিক্ষেপের পর কোরবানি শেষে মাথা মুন্ডন ও গোসল সেরে স্বাভাবিক পোশাক পরে মিনা থেকে মক্কায় গিয়ে পবিত্র কাবা শরীফ তাওয়াফ করবেন হাজীরা। এই দিকে বন্দর নগরী জেদ্দায় প্রবাসী অধ্যুষিত এলাকা গোরেয়াত,  গুলালাইল, কান্দারা,  নাজলা, চানাইয়া,  বাউয়াদী, সারা হেরা সহ বিভিন্ন এলাকায় সকাল ৬:১৫ মিনিটে পবিত্র ঈদুল আজহার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। প্রবাসীরাও আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে এবং আল্লাহ্ নৈকট্য লাভের আশায় পশু কোরবানি দেন।

মোহাম্মদ ফিরোজ/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*