স্টাফ রিপোর্টার (সৈয়দপুর):
রণাঙ্গনে একের পর এক যুদ্ধক্ষেত্র জয়ে বীরত্বের ইতিহাস থাকলেও দির্ঘ ৪৮ বছরেও স্বিকৃতি না মেলায় মুক্তিযোদ্ধার সুরত আলী জীবনযুদ্ধ পরাজয়ের গ্লানি নিয়ে অভাব-অনটনে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন।

জানা য়ায়, সৈয়দপুরের পাশ্ববর্তি চক সন্নাসি গ্রামে প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় বসত করেন সুরত আলী। দুই শতক জমির ওপর বাড়িটিতে বাশ ও ভাঙ্গা টিনের ছাউনির তিনটি ঘর। সেই তিন ঘরে পরিবার নিয়ে বসবাস করছেন ৩ ছেলে। সেই ভাঙ্গা ঘরের বাইরের এক কোণে মাদুর বিছিয়ে স্ত্রী ও এক বিবাহ যোগ্য কণ্যাকে নিয়ে জীবন কাটাচ্ছেন। তবে বয়স আশির কাছাকাছি হলেও সুঠামদেহটি এখনো নুয়ে পড়েনি। স্বাধীনতার পর থেকে রিক্সা চালিয়ে কিংবা অন্যের বাড়িতে শ্রমিকের কাজ করে দিন যাপন করছেন। এখন বয়স প্রায় আশি ছুই-ছুই। তাই আগের মত শ্রম দিতে না পারায় ঘরের এক কোণে পান দোকান করে দিনাতিপাত করছেন। ছেলেরা পৃথক হয়ে সংসার ছোট হলেও এখন তিন সদস্যর সংসারে তাকে অর্ধাহারে কাটাতে হচ্ছে। অকুতোভয় যোদ্ধা আজ জীবন যুদ্ধে পরাজিত হয়েছেন।

এ দিকে, সুরত আলী মুক্তিযোদ্ধার সনদ পেতে একাধিকবার মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলে যান। তবে সেখান থেকে হতাশা নিয়ে ফিরে আসেন। ২০১৪ সালের ৫ ই জানুয়ারী নির্বাচনে একাই ভোট দিতে গেলে সন্ত্রাসীরা তার বাড়িতে হামলা চালান। এখন সন্ত্রাসীদের মৃত্যুভয়ে দিন কাটাতে হচ্ছে এ অসহায় যোদ্ধাকে।

আফরোজ আহমেদ সিদ্দিকী (টুইংকেল)/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*