বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি:
বেনাপোল বাসীর স্বপ্ন পূরনের মধ্যে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বুধবার (১৭ জুলাই) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনের উদ্বোধন ঘোষনা করেন। বুধবার বেলা সোয়া একটায় বেনাপোল এক্সপ্রেস ট্রেনটি বেনাপোল থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে গেছে। এ ট্রেনে বগি থাকবে ১২টি।

ট্রেনটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বেনাপোল রেলওয়ে স্টেশন থেকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সংযুক্ত হতে যশোর বেনাপোলে উপস্থিত ছিলেন, যশোর-১ শার্শা আসনের সাংসদ শেখ আফিল উদ্দিন, যশোর-২ আসনের সাংসদ নাসির উদ্দিন,ব াংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক মো: শামসুজ্জামান ও বাংলাদেশ রেলওয়ের ক্যারেজ সংগ্রহ প্রকল্পের পরিচালক প্রকৌশলী হারুন-অর-রশিদ, যশোর জেলার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক হুসাইন মোহাম্মদ শওকত, বেনাপোল কাষ্টমস্ কমিশনার বেলাল হোসাইন চৌধুরীসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

সংগৃহীত কোচসমূহের অন্যতম নতুন বৈশিষ্ট্য হলো বায়ো-টয়লেট সংযোজন। ট্রেনটিতে প্রতিবন্ধী যাত্রীদের হুইলচেয়ারসহ চলাচলের সুবিধার্থে থাকছে প্রশস্ত দরজা (মেইন ও টয়লেট দরজা) এবং নির্ধারিত আসনের সুবিধা। যাত্রীসাধারণের জন্য আধুনিক ও মানসম্মত চেয়ার, বার্থ, স্টেয়ার, পার্সেল র‌্যাক, টিভি মনিটর হ্যাংগার, ওয়াই-ফাই রাউটার হ্যাংগার, মোবাইল চার্জারের ব্যবস্থা রয়েছে।
‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি ১২টি কোচ দ্বারা চলবে। ট্রেনটিতে এসি সিট, এসি চেয়ার ও শোভন চেয়ার শ্রেণির সর্বমোট ৮৯৬টি (৭৯৫ নম্বর ট্রেনের ক্ষেত্রে) এবং এসি বার্থ, এসি চেয়ার ও শোভন চেয়ার শ্রেণির সর্বমোট ৮৭১টি (৭৯৬ নম্বর ট্রেনের ক্ষেত্রে) আসনের ব্যবস্থা থাকবে। বেনাপোল ট্রেনের সাপ্তাহিক বন্ধের দিন (৭৯৫) বুধবার ও (৭৯৬) বৃহস্পতিবার। ট্রেনটি বেনাপোল থেকে ছাড়বে দুপুর ১টায়, ঢাকায় পৌঁছবে রাত ৯টায় এবং ঢাকা থেকে ছাড়বে রাত ১২টা ৪০ মিনিটে, বেনাপোল পৌঁছবে সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী জোনের সিগন্যাল এন্ড টেলিকমিউনিকেশন চীফ ইঞ্জিনিয়ার ওয়াসিম কুমার তালুকদার, যশোর জেলা পুলিশ সুপার মইনূল হক, শার্শা উপজেলার নির্বাহি অফিসার পূলক কুমার মন্ডল,উপজেলার চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুজ্জামান, বেনাপোল সিএন্ড এফ এজেন্ট এসোসিয়েশন সভাপতি মফিজুর রহমান স্বজন প্রমুখ।

মোঃ রাসেল ইসলাম/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*