গাইবান্ধা প্রতিনিধি:
উজ্জান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও গত ক’দিন ধরে অবিরাম বৃষ্টির ফলে গাইবান্ধার নদী গুলোতে পানি বৃদ্ধি অব্যহত আছে । টানা ছয় দিন ধরে গাইবান্ধায় দুরপাল্লার পরিবহন ধমঘট চলছে। এতে যাত্রীদের পাশাপাশি বিপাকে পড়েছে পরিবহন শ্রমিকরাও। শ্রমিকদের দাবি দ্রুত এ সমস্যা সমাধান করে পরিবহন চলাচল করা হক।

পরিবহন শ্রমিক ও বহিরাগত পরিবহন মালিকদের দ্বন্দে¦ গাইবান্ধা কেন্দ্রীয় বাস টামিনাল থেকে ঢাকাগামী দুরপাল্লার যাত্রীবাহী বাস বন্ধ রেখেছে মালিকপক্ষ। দুরপাল্লার পরিবহন জেলা বাস টার্মিনাল থেকে ছাড়ার সময় শ্রমিক ও মালিক সংগঠনকে ১৮০ টাকা করে চাদা দিত কিন্তু গেল শুক্রবার রাত থেকে তা বাড়িয়ে ২৬০ টাকা দাবি করলে মালিক পক্ষ তা দিতে অস্বীকৃতি জানায়।

এতে দুই সংগঠনের দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হলে বহিরাগত মালিক পক্ষ বাস ছাড়ার অনুমতি না দিয়ে বাস বন্ধ রাখে। গাইবান্ধা থেকে ঢাকাগামী শ্যামলী, এসআর, হানিফ, একতা, আলহামরা, অরিনসহ আরো কয়েকটি বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। শ্রমিকরা জানায় চাদা বৃদ্ধি ও মহাসড়কে চাদা বন্ধ সহ বেশ কয়েকটি দাবী তাদের রয়েছে ।

খালেদ হোসেন/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*