ডেস্ক রির্পোট:

ঘুষ নেয়ার সময় দুদকের ফাঁদে ধরা পরেছেন দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা রেজাউল করিম সরকার । মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় উপজেলা পরিষদে তার নিজস্ব কার্যালয় থেকে তাকে আটক করা হয়। দিনাজপুর সমন্বিত দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে।

সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক আবু হেনা আশিকুর রহমান, সহকারী পরিচালক আহসানুল কবির পলাশসহ দুদকের একটি দল এ অভিযান চালায়। অভিযানের সময় উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তার কাছ থেকে ঘুষের নগদ ২০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।

দুদক কর্মকর্তা ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, পার্বতীপুরের শেখপাড়া গ্রামের ইয়াসিন আলীর ছেলে সবুজ ইসলামের কাছ থেকে ঘুষের এই টাকা নিচ্ছিলেন রেজাউল করিম। উপজেলার বড় দল ও খুনিয়ার পুকুর সংস্কারে ৪০ লাখ টাকা বাজেট দেয় উপজেলা প্রশাসন। সেই কাজটি করেন ঠিকাদার সবুজ। তিনি ওই মৎস্য কর্মকর্তার কাছে পুকুর খননের বিল তোলার জন্য যান।

সবুজ ইসলামের কাছে ৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন রেজাউল করিম। সবুজ তিন লাখ টাকা দিতে রাজি হন। কিন্তু রেজাউল করিম কিছুতেই বিল ছাড় করছিলেন না। পরে সবুজ যোগাযোগ করেন দুদকে। দুদকের পরিকল্পনামাফিক মঙ্গলবার দুপুরে সেই ৫ লাখ টাকার কিছু অংশ ২০ হাজার টাকা দিতে মৎস্য কার্যালয়ে আসেন সবুজ। এসময় দুদকের টিম ওই মৎস্য কর্মকর্তাকে ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে আটক করে।

ডেস্ক রির্পোট/হাবিব ইফতেখার/শািহনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*