আখাউড়া প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌরশহরের দেবগ্রাম সরকারী পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে বিদ্যালয়ের স্কুল চলাকালীন সময়ে দুপুর ২টার দিকে বিদ্যালয়ের ক-শাখার শ্রেণী কক্ষে ছাত্রীর স্পর্শকাতর জায়গায় হাত দিয়ে ছাত্রীর শ্লীলতা হানি করেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পলাশ মিয়া(৪০) তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার পাকশিমুল গ্রামের মৃতঃ হায়দার আলীর ছেলে।

ছাত্রীর শ্লীলতাহানির দ্বায়ে আখাউড়া থানায় অভিযোগ করেন ছাত্রীর পিতা পরে আখাউড়া থানা পুলিশ বিদ্যালয়ে অভিযান চালিয়ে শিক্ষক পলাশ কে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসেন। এব্যপারে কথা হলে অভিযুক্ত শিক্ষক পলাশ জানান তিনি সরযন্ত্রের শিকার তবে উল্যেখ করে কারো নাম বলতে পারেননি তিনি।

আখাউড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রসুল আহমেত নিজামী বলেন,  ছাত্রীর পিতার করা অভিযোগের প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত শিক্ষক পলাশ কে গ্রেফতার করা হয়েছে, তার বিরোদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন আগামীকাল তাকে আদালতে প্রেরণ করা হবে।

বাদল আহাম্মদ খান/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*