ডেস্ক রির্পোট:
পার্বতীপুর পৌর মেয়র ও থানা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি এজেড এম মেনহাজুল হকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে ৪জুলাই বৃহস্পতিবার বিকেল ৬টায় সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

পার্বতীপুর শহরের নতুনবাজার দৈনিক মানববার্তা কর্যালয়ে মেয়রের পক্ষে সংবাদ সম্মেলনে মেয়রের লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন প্যানেল মেয়র মঞ্জুরুল আজিজ পলাশ।

উল্লেখ্য, গেল ২জুলাই রোজ মঙ্গলবার পার্বতীপুর মডেল থানায় মেয়রের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনের আহ্বান করা হয়। এছাড়াও বুধবার (৩জুলাই) পৌর মেয়র এজেড এম মেনহাজুল হকের বিরুদ্ধে কয়েকটি জাতীয় ও স্থানীয় পত্রিকায় এবং অনলাইন নিউজপোর্টাল এবং টেলিভিশনের টিকারে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, এমকে টেলিভিশন চেয়ারম্যান হাবিব ইফতেখার (মোহনা টেলিভিশন), আব্দুল কাদের (কালের কন্ঠ), মাহামুদুর রহমান (সমকাল), মোস্তাফিজুর রহমান বকুল (ভোরের কাগজ), আতাউর রহমান (ভোরের দর্পন), মুসলিমুর রহমান (দৈনিক যুগান্তর), একরামুল হক বেলাল (সম্পাদক সংবাদ প্রতিক্ষন), মামুনুর রশিদ (মানবকন্ঠ), আল মামুন মিলন (প্রতিদিনের সংবাদ), বদরুদুজ্জা বুলু (মানব বার্তা), মঞ্জুরুল আলম (করতোয়া), আব্দুলাহ আল মামুন (খোলাকাগজ), মিজানুর রহমান (দৈনিক জনতা), সোহেল সানি (দেশ রুপান্তর), শাহিনুর রহমান (এমকে টেলিভশন), আমজাদ হোসেন (দৈনিক সংগ্রাম)সহ স্থানীয় ইলেকট্রোনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ।

মেয়রের জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একটি স্বার্থান্বেষি মহল ওই নারীকে বিভিন্নভাবে চাপ দিয়ে সম্পূর্ন মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও মনগড়া তথ্যে থানায় মামলা করে। সেই সাথে ক’জন সাংবাদিকদের দিয়ে সংবাদ প্রকাশ করেছে। যা সম্পূর্ন মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। এবিষয়ে মেয়র তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে।

হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর রহমান/এস রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*