হয়তো এখন আপনার খুব গুরুত্বপূর্ণ পড়া তৈরী করার কথা ছিলো, বা হয়তো খুব দরকারি একটা কাজ করার কথা ছিলো, আপনি ভেবেছিলেন ইউটবে একটা ভিডিও দেখে তারপরে শুরু করবেন, কিন্তু আপনি নিজেকে থামাতে পারেনন্নি একের পর এক মজাদার ভিডিও দেখে চলেছেন, আর দেখতে দেখতে এখন এই ভিডিওটা দেখছেন রাইট ?? আপনি কি জানেন এমনটা কেমন হয়, কেন আমরা একটা ভিডিও দেখবো বলে একটানা ১০টা ভিডিও দেখে ফেলি। কারন আমাদের মধ্যে একটা রোগ আছে রোগটা তেমন জটিল নয় তবে খুব ভয়ংকর, এই রোগটা যার মধ্যে বেশি আছে তার জীবন গেল, আরো মজাদার বিষয় হলো এই রোগের ওষুধ কোন মেডিসিনের দোকানে পাওয়া যায় না, ওষুধটা আপনার নিজের কাছে আছে রোগটির নাম হলো প্রকাসটিনেসন বা ঢিলেমি করা, আরো সহজ ভাষায় বললে বলা যায় অকারনে সময় নষ্ট করা তো আজ আপনাদের সাথে এমনটি বিষয় শেয়ার করবো হয়তো আজকের পর থেকে আপনার সময় নষ্টকরার অভ্যাসটা পরিবর্তন হয়ে যাবে। সেই ট্রিকটার নাম হলো দ্যা ফাইভ সেকেন্ড রুল, কোন কাজ শুরুকরার আগে ডিসিশন নেওয়ার জন্য বা সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য আপানর কাছে মাত্র ৫ সেকেন্ড সময় থাকে, বাস্তবে আমাদের ব্রেন্ট খুব কন্টটেভেল থাকতে চাই, তার খুব ভালো লাগে যখন আমারা খুব হাসি খুশি থাকি কন্টটেভেল থাকি, আর খাটের উপর শুয়ে আরাম করি তখন আমাদের ব্রেনে ডোপামিন নামক একটা ক্যামিকেল রিলিজ হয়, যখনিই আপনি যাং ফ্রুট খান নতুন নতুন মজাদার ভিডিও দেখেন তখন আপনার ব্রেনে ডোপামিন রিলিজ হয় আর আপনার মধ্যে একটা ভালো ফ্লিংস হয়, ভালো অনুভুতি তৈরী হয়।

মেল রবিনসের এই ৫ ফাইভ সেকেন্ড রুল সারা পৃথীবিতে কয়েক মিলিয়ন মানুষ ব্যবহার করে আজ উপকৃত, আশাকরি এই ৫সেকেন্ড রুল ব্যবহার করে আপনিও উপকৃত হবেন, আজকের ভিডিও থেকে আপনি নতুন কিছু শিখলে আবশ্যই আপনার বন্ধু বান্ধব এবং প্রিয়জনদের সাথে শেয়ার করবেন , আর একটা লাইক করে আপনার সার্পট আমাদের জানাতে পারেন, ধন্যবাদ

শাহনিুর রহমান

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*