ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

দাসপ্রথা নেই, নেই সামন্ত প্রভুরা । তবে এখনও রয়ে গেছে টানা রিকশা কোলকাতায়। আর এই প্রাচীন শহরে মালপত্র-যাত্রী পরিবহণে ব্যবহার হচেছ মানবচালিত এই রিকশা। বিষয়টি অমানবিক ! তারপরও এই পেশা ছাড়ছে না অনেকে। হাতেটানা রিকশায় সংসার চলছে কোলকাতা শহরের দরিদ্র শত শত মানুষের। পালকির বিকল্প হিসেবে ব্যবহার শুরু হয় টানা রিকশার। আবিস্কারের দেশ জাপানে এই রিকশা রক্ষিত আছে দেশটির জাদুঘরে।

হাতে টানা এই রিকশায় মালপত্র বহন শুরু হয় ১৯০০ সালে ভারতের কোলকাতা শহরে। চৌদ্দবছর পর কোলকাতা পৌরসভা এই রিকশায় যাত্রী পরিবহনের অনুমতি দেয়। ততদিনে মিয়ানমারের রেঙ্গুনে টানা রিকশা জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। ১৯১৯ সালে রেঙ্গুন হয়ে এই রিকশা আসে চট্টগ্রামে। আর ঢাকায় এসেছে কোলকাতা থেকে। নারায়ণগঞ্জ ও ময়মনসিংহের ইউরোপের পাট ব্যবসায়ীর নিজ পরিবহনের জন্য এই রিকশা সংগ্রহ করে, কোলকাতা থেকে। প্রায় দেড়’শ বছর আগে হাতে টানা রিকশার ব্যবহার শুরু হয়।……………………….

(ভিডিওতে বিস্তারিত দেখুন, লাইক/শেয়ার এবং সাবস্ক্রাইব করুন)

mktelevision.net/সোহেল পারভেজ/হাবিব ইফতেখার/শাহিনুর/মৌরী

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*