প্রেস বিজ্ঞপ্তী :

পার্বতীপুরের মেধাবী কলেজছাত্রী খাদিজা আক্তারের (১৮) দুটি কিডনি নষ্ট হয়ে গেছে। বর্তমানে পিতৃহীন ওই ছাত্রী মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। টাকার অভাবে মেয়ের চিকিৎসা করাতে পারছেন তার দরিদ্র মা বেবী খাতুন।
জানা যায়, পার্বতীপুর উপজেলার পলাশবাড়ী ইউনিয়নের ধোবাকল খিয়ারপাড়া গ্রামের মৃত মোহসিন আলীর মেয়ে খাদিজা আক্তার ২০১৪ সালে এসএসসি পরীক্ষায় নুরুল হুদা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে জিপিএ ৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়। খোলাহাটি ডিগ্রি কলেজ থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে বিজ্ঞান বিভাগে এইচএসসি পাস করে সে। বর্তমানে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কিডনি বিশেষজ্ঞ ডা. মেজবা উদ্দীন নোমানের তত্ত্বাবধানে থাকা মেয়েটিকে কিডনি ডায়ালিসিস করে বাঁচিয়ে রাখা হয়েছে। তার ভাই রোস্তম আলী তাকে কিডনি দান করতে চায়; কিন্তু কিডনি ট্রান্সফার করে মেয়েটিকে সুস্থ করতে কমপক্ষে ১৫ লাখ টাকা লাগবে। তার দরিদ্র মার পক্ষে এতো টাকা জোগাড় করা সম্ভব হচ্ছে না। খাদিজার চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীসহ দেশের সর্বস্তরের মানুষের কাছে আর্থিক সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন তার মা। সাহায্য পাঠানোর বিকাশ নম্বর- ০১৭৮৫৪৯৮৩৮৯।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*