ময়ূরকণ্ঠী খেলার ডেস্ক :

নিরাপত্তা ঝুঁকির অজুহাতে ধর্মশালায় ভারতের বিপক্ষে খেলতে বরাবরই আপত্তি দেখায় পাকিস্তান। ভেন্যু পরিবর্তনের জন্য আইসিসি ও বিসিসিআই’র (ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড) দৃষ্টি আকর্ষণও করে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। ফলশ্রুতিতে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের ভেন্যু ধর্মশালা থেকে সরিয়ে কলকাতায় নেওয়া হয়। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টেনের ম্যাচটি ধর্মশালার পরিবর্তে কলকাতার ইডেন গার্ডেনসে অনুষ্ঠিত হবে। আর তাতে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) প্রেসিডেন্ট এবং সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলি দারুণ খুশি। ১৯ মার্চ ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে। আর ম্যাচটি নির্বিঘ্নে যাতে সম্পন্ন হয় সেদিকে নজর রাখবেন বলে জানান গাঙ্গুলি। ম্যাচটি নিয়ে বেশ রোমাঞ্চিত ভারতের সাবেক এই দলপতি বলেন, আমি ব্যক্তিগত ভাবে বেশ খুশি যে কলকাতার মাটিতে ভারত- পাকিস্তান ম্যাচটি আয়োজিত হচ্ছে। এটা ভারতের যেকোনো ভেন্যুতে হতে পারতো। কিন্তু আমরা ভাগ্যবান যে ম্যাচটি আমাদের আয়োজন করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। আমরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো ম্যাচটি ভালোভাবে সম্পন্ন করতে। সম্প্রতি ধর্মশালার নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে নিরাপত্তা প্রতিনিধি দল পাঠায় পিসিবি। নেতিবাচক রিপোর্টের প্রেক্ষিতেই ভেন্যু পরিবর্তনের জোরালো আবেদন জানান পিসিবি চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খান। পাকিস্তানকে পূর্ণ নিরাপত্তা দেওয়ার আশ্বাস দিলে দলটি ভারতের মাটিতে পা রাখে। ধর্মশালা থেকে হঠাৎ করেই কলকাতায় ম্যাচটি নিয়ে যাওয়ায় অতিথি দলটিকে কিভাবে নিরাপত্তা দেওয়া হবে, এমন প্রশ্নের উত্তরে ৪৩ বছর বয়সী গাঙ্গুলি জানান, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচটি আয়োজন চ্যালেঞ্জিং হলেও এটা শুধুমাত্র আমাদের কাছে অন্য একটি ম্যাচের মতোই। আমরা পুরো টুর্নামেন্টের জন্য প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি। এমনকি বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচটির জন্যও আমরা প্রস্তুত। নিরাপত্তা নিয়ে আমাদের কোনো সমস্যাই হবে না।
mktelevision.net/নাভিদ মুসতাসিম ঋষু/ইফতেখার/আল মামুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*